Class-9 Bangla Question Answer| বৈচিত্র্যপূর্ণ অসম | গড়িয়া মরিয়া ও দেশীগণ

Class-9 Bangla Question Answer| বৈচিত্র্যপূর্ণ অসম | গড়িয়া, মরিয়া ও দেশীগণ প্রতিটি অধ্যায়ের উত্তর তালিকায় প্রদান করা হয়েছে যাতে আপনি সহজেই বিভিন্ন অধ্যায় জুড়ে ব্রাউজ করতে পারেন এবং আপনার প্রয়োজন Class-9 Bangla Question Answer| বৈচিত্র্যপূর্ণ অসম | গড়িয়া মরিয়া ও দেশীগণ এমন একটি নির্বাচন করতে পারেন।

SEBA CLASS 9 QUESTION ANSWER (Ass. MEDIUM)

SUBJECTSLink
EnglishClick Here
অসমীয়াClick Here
বাংলাClick Here
বিজ্ঞানClick Here
সমাজ বিজ্ঞানClick Here
हिंदी ( Elective )Click Here
ভূগোল (Elective)Click Here
বুৰঞ্জী (Elective)Click Here

Class-9 Bangla Question Answer| বৈচিত্র্যপূর্ণ অসম | গড়িয়া মরিয়া ও দেশীগণ

Also, you can read the SCERT book online in these sections Solutions by Expert Teachers as per SCERT (CBSE) Book guidelines. These solutions are part of SCERT All Subject Solutions From above Links . Here we have given Class-9 Bangla Question Answer| বৈচিত্র্যপূর্ণ অসম | গড়িয়া, মরিয়া ও দেশীগণ Solutions for All Subjects, You can practice these here.

সদৌ অসম গড়িয়া, মৰিয়া দেশী জাতীয় পরিষদ

প্রশ্নাবলী

প্রশ্ন ১। অসমিয়া জাতি বলতে কি বোঝায় বর্ণনা করো।

উত্তর : ভিন্ন জনগোষ্ঠীর দেশ অসম। বিভিন্ন জাতি উপজাতি দিয়া পরিবেষ্টিত। বিভিন্ন জাতি উপজাতিকে লইয়া বৃহত্তর অসমিয়া জাতি গঠিত হইয়াছে। 

প্রশ্ন ২। বক্তিয়ার খিলজি কখন অসমে প্রবেশ করিয়াছিল? 

উত্তর : বক্তিয়ার খিলজিয়ে ১২০৫-০৬ খ্ৰীষ্টাব্দে অসমে প্রবেশ করিয়াছিল।

প্রশ্ন ৩। বক্তিয়ার খিলজি কেন অসমে প্রবেশ করিয়াছিল?

উত্তর : তিব্বত-চীন জয় করার মানসে।

প্রশ্ন ৪। বক্তিয়ার খিলজি কার হাতে পরাস্ত হইয়াছিল?

উত্তর : কামরূপের রাজা পৃথুর হাতে পরাস্ত হইয়াছিল।

প্রশ্ন ৫। ইসলাম ধর্মে ধর্মান্তরিত হওয়া প্রথম জনজাতীয় রাজার নাম কি? 

উত্তর : আলী মেচ প্রথম জনজাতীয় রাজার নাম।

প্রশ্ন ৬। গড়িয়া শব্দের ব্যাখ্যা করো। অসমে কাকে গড়িয়া বলা হয়? 

উত্তর : গড়িয়া শব্দের সঙ্গে ‘গৌড়’ শব্দের সাদৃশ্য দেখিয়া অনেকে বলেন যে গড়িয়ারা, আসলে বঙ্গ দেশের লোক। বক্তিয়ার খিলজি কামরূপ অভিযানের সময়ে কামরূপের রাজা পৃথুর বাহিনীয়ে খিলজির সৈন্যকে কামরূপ জেলার কুমারীকাটাতে পরাজিত করে। এবং বহু মুসলমান সৈন্যকে যুদ্ধে বন্দী করেন। সেই যুদ্ধবন্দীদের পরে ক্ষমাদান করিয়া এইখানেই মাটি-বাড়ী নিয়া স্থানীয়দের সহিত বৈবাহিক সম্বন্ধ স্থাপিত করে। ইহারা মূল সমাজ হইতে বাদ পড়িয়া ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করিয়াছিলেন। এই লোকেরাই গড়িয়া। অন্যদিকে আহোম ও মোঘলের যুদ্ধের ফলে যুদ্ধবন্দীরা উজনি অসমের গড়িয়া সম্প্রদায়

সৃষ্টি করে।

প্রশ্ন ৭। আহোম রাজত্বকাল পর্যন্ত অসমে একাংশ খিলঞ্জিয়া লোকেরা ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করার দুটি কারণ বর্ণনা করো।

উত্তর : প্রথম কারণ জনজাতীয় রাজা আলী মেচ ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করিয়া বক্তিয়ার খিলজিকে পথ দেখাইয়া আসেন। রাজা যেহেতুে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করিয়াছেন, সুতরাং প্রজারাও তাহাই করিয়াছেন। দ্বিতীয় কারণ ত্রয়োদশ শতকে তুরস্কের রাজা হাসানের সঙ্গে যেসকল সৈন্যবাহিনী আসিয়াছিলেন। তাহাদের একাংশ যুদ্ধবন্দী হইয়া থাকিয়া যায় এবং স্থানীয়দের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। এইভাবে ইসলামের সূচনা ঘটে। 

প্রশ্ন ৮। মরিয়া ও দেশী জনগোষ্ঠীর বিষয়ে বর্ণনা করো।

উত্তর : আহোম রাজত্বকালে কাঁস-পিতলের সঙ্গে জড়িত ইসলাম ধর্মাবলম্বী লোকদের মরিয়া বলিয়া জানা যায়। মরিয়া লোকদের উজান বাজার ও হাজোতে দেখা যায়। আর দেশীরা মূলত অবিভক্ত গোয়ালপাড়া কোচ-রাজবংশী ভাষা সংস্কৃতি সম্পন্ন ইসলাম ধর্মীয় মানুষ। ইহারা মূলত কোচ রাজবংশী, মেচ, কছরি ইত্যাদি স্থানীয় জনগোষ্ঠী হইতে ধর্মান্তরিত লোক।

প্রশ্ন ৯। মহান অসমিয়া সমাজ গঠনের প্রক্রিয়া কে, কার রাজত্ব কালে আরম্ভ করেছিলেন?

উত্তর : আহোম রাজত্বকালে মোমাই তামুলি বরবরুয়া অসমিয়া সমাজ গঠনের প্রক্রিয়া আরম্ভ করিয়াছিলেন।

প্রশ্ন ১০। সংক্ষিপ্ত টাকা লেখো :

(ক) বাঘ হাজরিকা (খ) আজান ফকির সাহাব (গ) সৈয়দ আব্দুল মালিক (ঘ) নবাব সহিদুর রহমান

উত্তর : (ক) বাঘ হাজরিকা : তাঁহার প্রকৃত নাম ইসমাইল সিদ্দিকী। বাঘের সঙ্গে যুদ্ধে বাঘকে পরাজিত করিয়া অবিশ্বাস্য শক্তির পরিচয় দিয়া বাঘ নাম অর্জন করেন। অদম্য সাহস ও কর্মদক্ষতার জন্য আহোম রাজত্বকালে হাজরিকা পদবি লাভ করেন। শরাইঘাটের যুদ্ধে লাচিত বরফুকনের অন্যতম সহযোগী ছিলেন।

(খ) আজান ফকির সাহাব : যেসকল ধর্ম গুরু পবিত্র ইসলাম ধর্মের বাণী সহজ সরল ভাষায় জনগণের মধ্যে প্রচার করিয়াছিলেন তাঁহাদের মধ্যে আজান ফকির অন্যতম। আজান ফকিরের অন্য নাম শাহ মিলন। আজান ফকির সুদূর বাগদাদ হইতে ইলসাম ধর্ম প্রচার করিতে অসমে আসিয়া উপস্থিত হইয়াছিলেন। তাহার রচিত জিকির অসমিয়া ভাষার অমূল্য সম্পদ।

(গ) সৈয়দ আব্দুল মালিক : ১৯১৯ সালের ১৬ মে’ সৈয়দ আব্দুল মালিকের জন্ম হয়। তাহার পিতার নাম সৈয়দ রহমত আলী। ১৯৭৭ সালে তিনি অসম সাহিত্য সভার সভাপতি হন। তাহার বিখ্যাত উপন্যাস ‘ধন্য নর তনু ভাল’। ১৯৮৪ সালে তিনি পদ্মশ্রী সন্মান লাভ করেন। ২০০২ সালে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। তিনি অসমিয়া সাহিত্যের খ্যাতনামা কথা সাহিত্যিক।

(ঘ) নবাব সাইদুর রহমান : নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর আজাদ হিন্দ ফৌজের একজন

অন্যতম নেতা ছিলেন। আজাদ হিন্দ ফৌজের তিনি প্রথম অসমিয়া শহিদ। ১৯৪৫ সালের

৩১ মার্চে তাঁহার মৃত্যু হয়। দ্বিতীয় মহাযুদ্ধের বোমাবর্ষণে তাঁহার মৃত্যু হইয়াছিল।

ক্লাস 9 বাংলা প্রশ্নের উত্তর

S.L. No.Group A সূচীপত্র
পাঠ ১গৌরাঙ্গের বাল্যলীলা
পাঠ ২খাই খাই
পাঠ ৩ধূলামন্দির
পাঠ ৪কবর
পাঠ ৫মনসামঙ্গল
পাঠ ৬প্রত্যুপকার
পাঠ ৭ছুটি
পাঠ ৮ডাইনী
পাঠ ৯পিপলান্ত্ৰি গ্ৰাম
পাঠ ১০অ্যান্টিবায়ােটিক ও পেনিসিলিনের কথা
পাঠ ১১লড়াই
পাঠ ১২আমরা
পাঠ ১৩আগামী
পাঠ ১৪আত্মকথা
পাঠ ১৫ভারতবর্ষ
পাঠ ১৬ব্যাকরণ
পাঠ ১৭রচনা
S.L. No.Group B সূচীপত্র
বৈচিত্রপূর্ণ আসাম
পাঠ ১আহােমগণ
পাঠ ২কাছাড়ের জনগােষ্ঠী
পাঠ ৩কারবিগণ
পাঠ ৪কোচ রাজবংশীগণ
পাঠ ৫গড়িয়া, মরিয়া ও দেশীগণ
পাঠ ৬গারােগণ
পাঠ ৭সাঁওতালগণ
পাঠ ৮চা জনগােষ্ঠী
পাঠ ৯চুটিয়াগণ
পাঠ ১০ঠেঙাল কছারিগণ
পাঠ ১১ডিমাসাগণ

Leave a Reply